রঙ কথা বলে

রং মানুষের মনের কথা বলে:

Color Chart
Fig: Color Chart

প্রত্যেক রঙেরই নিজস্ব অর্থ ও মনের মধ্যে আবেগ তৈরির এক বিশেষ ক্ষমতা রয়েছে। রঙ মনকে বলে দেয় কখন আনন্দে মেতে উঠতে হবে, আর কখন দুঃখে নীরব থাকতে হবে। তাই তো ফ্যাশনের ক্ষেত্রে রঙের সমন্বয় কিভাবে করতে হবে তা একটি অতি বিবেচ্য বিষয়। রঙ আপনার বাহ্যিক দৃষ্টিভঙ্গি প্রস্ফুটিত করতে পারে এবং একই সাথে আমাদের ও আমাদের চারিপাশের লোকজনের আচরণ প্রভাবিত করতে পারে। আপনার যদি জানা থাকে কোন রঙ কোন ধরনের আবেগ তৈরিতে সহায়তা করে তাহলে আপনি সহজেই পারিপার্শ্বিক পরিবেশের সাথে সমন্বয় করে সঠিক রঙের পোশাক নির্বাচন করে সহজেই অন্যদের প্রভাবিত করতে পারেন।

পুরুষদের জন্য বিজনেস ও অফিসিয়াল ড্রেসে ট্রিমিংস যেমন-টাই, নেকটাই, বেল্ট, সু, মোজা ইত্যাদির রঙ নির্বাচন বিশেষ বিবেচ্য বিষয়। পোশাকের বড় অংশ যেমন-শার্ট ও প্যান্ট সাধারণত প্রচলিত রঙের হবে। সুটের রঙ সধারনত গ্রে, নেভি, জলপাই, চকলেট বা কফি। শার্ট অবশ্য বিভিন্ন রঙেরই হতে পারে, তবে অধিক ব্যাবহৃত হয় , সাদা, ব্লু ও গ্রে, অবশ্য পাশাপাশি ডোরা ও চেকও ব্যবহৃত হয়।

আমরা কিছু রঙের নিজস্ব অর্থ ও বৈশিষ্ট্য জেনে-নিব যা আমাদের পোশাকের সাথে সঠিক রঙের ট্রিমিংস নির্বাচনে সহায়তা করবে।
লাল: কর্তৃত্ব ও ক্ষমতা, দৃষ্টি আকর্ষণ, সক্ষমতা ও শক্তি। 'রেড নেকটাই ইজ দ্যা আল্টিমেট পাওয়ার টাই', প্রচলিত বিজনেস চয়েসে কিছুটা গাঢ় যেমন- চেরি, মেরুন বা ওয়াইন রেড ব্যবহার করতে পারেন।

পিঙ্ক: পিঙ্ক একটি আনন্দ ও হ্যাঁসুচক, বন্ধু-সুলভ, শান্ত রঙ। শরত ও গ্রীষ্মে পিঙ্ক টাই ও নেকটাই গ্রে, নেভি ও কফি শার্টের সাথে চলতে পারে।

কমলা: কমলাকে প্রায়শই সুখী রঙ বলা হয়। একে অর্জন, সাহসী, প্রস্ফুটন, উদীপ্ত ইত্যাদি অর্থ করা হয়।

বাদামী: এটা একটা স্থায়ী রঙ। এটা নির্ভরযোগ্য, সহজ ও আরামদায়ক। গাঢ় বাদামী শীতে ও হালকা বাদামী শরতে বেশি মানানসই।

হলুদ: হলুদ খুবই প্লেফুল একটি কালার যা প্রায়শই এ এনিক্সিটি, অপটিমিজম ও কনফিডেন্সের সাথে একটা সংযোগ স্থাপন করে। রৌদ্রোজ্জ্বল দিনে হলুদ টাই বা নেকটাই অনেকে পছন্দ করেন।

গ্রীন: আভিজাত্য, প্রেস্টিজ, শক্তি ও বিজয়ের রঙ হল গ্রীন। অনেক দেশে এ জন্য ব্যাংক নোটের রঙ সবুজ হয়ে থাকে।

ব্লু: বিশ্বাস ও শান্তি স্থাপনের জন্য চাই ব্লু। অবশ্য ভালবাসা, বিঞ্গতা, সামাজিক মর্জদা, সুস্বাস্থ্য, সুখী ও সম্মানিতের প্রতীক ব্লু। ব্লু রঙের টাই বা নেকটাই অনেক জনপ্রিয় এবং প্রায় সব রঙের সুটের সাথে পড়া যায়। শরত ও গ্রীষ্মের জন্য হালকা ব্লু চমৎকার রঙ।

পার্পল: এটা বেশ স্পিরিটোয়াল ও পাওয়ার-ফুল। ফ্রান্সে কোন স্মরণীয় দিনে এ রঙের পোশাক পড়া হয়। নেভিব্রু বা হালকা গ্রে'র সাথে অনেকে পার্পল টাই বা নেকটাই পড়েন।

ল্যাভেন্ডার: এটা রোমান্টিক ও ইমাজেনেটিভ কালার। শরত ও গ্রীষ্মে বিয়ে উৎসবে এ রঙ বেশি ব্যবহৃত হয়।

সোনালী: প্রেস্টিজ ও আভিজাত্যের রঙ সোনালী। নিজেকে চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় করে প্রকাশ করার জন্য এ রঙ।
রুপালী: রুপালী রঙও প্রেস্টিজ ও আভিজাত্যে প্রকাশ করে, কিন্তু সোনালীর চেয়ে কিছুটা শান্ত স্বভাবে।

কালো: কাল খুব বেশি এলিগেন্ট। অফিসিয়াল ড্রেস হিসেবে কালো কম ব্যবহৃত হয়। শোক প্রকাশের জন্য এ রঙ ব্যবহার হয়।
সাদা: পবিত্রতা ও সততা প্রকাশের রঙ সাদা। ন্যায় বিচারের প্রতীক হিসেবে জার্মানিতে বিচারকরা সাদা নেকটাই পড়ে থাকেন।

অতএব আপনিও আপনার পছন্দের রঙ ব্যবহার করে নিজেকে আকর্ষনীয় করে তুলুন সবার সামনে।



No comments:

Post a Comment

WAZIPOINT:
Thank you very much to visit and valuable comments on this blog post. Keep in touch for next and new article. Share your friends and well-wisher, share your idea to worldwide.